আজকের ট্রেন্ডিং

সাত মাসে ভারতের ৭ অধিনায়ক, সৌরভের কন্ঠে  অসহায়ত্ব!

India used 7 captains in seven months, helplessness in the voice of Sourav!

বর্তমান সময়ে ক্রিকেট পাড়ায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ভারতের অধিনায়ক বদলের বিষয়টি। গত সাত মাসে সাতজন অধিনায়ক বদল করেছে দলটি। একেকটি সিরিজে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন একেকজন ক্রিকেটার। এ যেন এক অলিখিত নিয়ম হয়েই দাঁড়িয়েছে।

 গত সাত মাসে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল, রিশাভ পান্ত, হার্দিক পান্ডিয়া, জাসপ্রিত বুমরা ও শিখর ধাওয়ান। অনেকের মতে ঘনঘন এই অধিনায়ক বদলের ব্যাপারটি মোটেও সুখকর নয় দলের জন্য৷ বিষয়টির সাথে একমত হলেও বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি জানালেন, পরিস্থিতি তাদের হাতে নেই।

সম্প্রতি পঞ্চাশের ঘরে পা দিয়েছেন সৌরভ। ইংল্যান্ডে পালন করেছেন তার জন্মবার্ষিকী। টাইমস অব ইন্ডিয়া’য় প্রকাশিত তার সাক্ষাৎকারে তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল অল্প সময়ে এত অধিনায়কের বিষয়টি নিয়ে। তার কথায় ফুটে ওঠে অসহায়ত্ব। 

সৌরভ বলেন, ” এত অল্প সময়ের মধ্যে ৭ জন আলাদা অধিনায়ক থাকা আদর্শ ব্যাপার নয়। কিন্তু এটি অনিবার্য পরিস্থিতির কারণে ঘটেছে। যেমন, রোহিত দক্ষিণ আফ্রিকায় সাদা বলের সিরিজে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত ছিল, কিন্তু এই সফরের আগে সে চোটে পড়ল। তাই আমরা কেএলকে (লোকেশ রাহুল) ওয়ানডের নেতৃত্ব দিয়েছিলাম এবং এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ঘরের মাঠে সিরিজের জন্যও, সিরিজটি শুরু হওয়ার একদিন আগে সেও চোটে পড়ল।’

সৌরভ আরো বলেন, ‘ইংল্যান্ডে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সময় রোহিত কোভিড আক্রান্ত হলো। এই পরিস্থিতিতে কারও দোষ নেই। সূচিই এমন যে আমাদের খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিতে হচ্ছে এবং এরপর চোটাঘাত তো আছেই। ‘ওয়ার্কলোড’ ম্যানেজমেন্টের ব্যাপারটিও মাথায় রাখতে হয়। প্রতিটি সিরিজে প্রধান কোচ রাহুলের (দ্রাবিড়) অবস্থাটা আমরা বুঝতে পারি। অনিবার্য পরিস্থিতির কারণে আমাদের নতুন অধিনায়ক বেছে নিতে হয়েছে।’

আরো আজকের ট্রেন্ডিং