ব্লগ

ক্রিকেট হাইলাইটস, ২৪ জুলাই: শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান (২য় টেস্ট – ১ম দিন)

শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান

শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান (দ্বিতীয় টেস্ট – ১ম দিন)

রবিবার (২৪ জুলাই) গলে সিরিজের ২য় ও শেষ টেস্টের প্রথম দিনের খেলা শেষে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ৩১৫ রান। ৪২ রান নিয়ে ব্যাট করছেন নিরোশান ডিকভেলা ও ৬ রান নিয়ে তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন অভিষিক্ত ডুনিথ ওয়েলালাই

টসে জিতে ব্যাটিং নেওয়া শ্রীলঙ্কার শুরুটা দারুণ হয় ওশাদা ফার্নান্দো ও দিমুথ করুনারত্নের উদ্বোধনী জুটিতে। ৪ চার ও ৩টি ছক্কায়, ৭০ বলে ৫০ রান করেন ফার্নান্ডো। ২১তম ওভারে মোহাম্মদ নওয়াজের বলে কট-বিহাইন্ড হওয়ার আগে করুনারত্নের সঙ্গে ৯২ রানের জুটি গড়ে তোলেন তিনি।

তবে মধ্যাহ্নবিরতির আগে-পরে ২৮ রানের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে শ্রীলঙ্কা। ফার্নান্দোর পর দুর্ভাগ্যজনকভাবে রানআউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন কুশল মেন্ডিস (৩)। করুনারত্নের স্ট্রেইট ড্রাইভ আগা সালমানের হাতে লেগে ভাঙে নন স্ট্রাইক প্রান্তের স্টাম্প, সে সময় ক্রিজের বাইরে ছিলেন মেন্ডিস।

দলীয় ১২০ রানের মাথায় প্যাভিলিয়নের পথে হাঁটেন অধিনায়ক করুনারত্নেও। ৪০ রান করে লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহের শিকারে পরিণত হন তিনি। ১২০ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া শ্রীলঙ্কাকে এরপর এগিয়ে নিয়ে যান শততম টেস্ট খেলতে নামা অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস ও ফর্মে থাকা দিনেশ চান্ডিমাল। ৪র্থ উইকেটে এ দুজন মিলে ৭৫ রানের জুটি গড়ে তোলেন। অবিচ্ছিন্ন থেকেই চা-বিরতিতে যান দুজন।

বিরতির পরপরই অবশ্য ফিরতে হয় ম্যাথুসকে। শ্রীলঙ্কার হয়ে এর আগে ১০০ বা তার বেশি টেস্ট খেলেছেন মাত্র পাঁচজন ক্রিকেটার। নোমান আলীর টার্ন করা দারুণ এক ডেলিভারিতে কট বিহাইন্ড হন ষষ্ঠ শ্রীলঙ্কান হিসেবে শততম টেস্ট খেলা ম্যাথুস, ১০৬ বলে ৪২ রানের ইনিংসে মারেন ৫টি চার। কাকতালীয়ভাবে অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসেও ৪২ রান করেছিলেন তিনি।

ম্যাথুস ফেরার পর ধনঞ্জয়া ডি সিলভাকে নিয়ে পঞ্চম উইকেট জুটিতে চান্ডিমাল যোগ করেন আরও ৬৩ রান। নিজে এগোচ্ছিলেন আরেকটি শতকের দিকেই। তবে নওয়াজের বলে উইকেট ছুড়ে আসেন তিনি। সামনে এসে মিড অনের ওপর দিয়ে খেলতে গিয়ে শর্ট ধরা পড়ে থার্ডম্যানের হাতে, ফলে ৯ চার ও ২ ছক্কায়, ১৩৭ বলে ৮০ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরেন চান্ডিমাল।

চান্ডিমালের বিদায়ের পর সিলভা ও ডিকভেলা আরেকটি বড় জুটির সম্ভাবনা জাগালেও দিনের খেলা শেষ হবার কিছুক্ষণ আগে আউট হয়ে যান ডি সিলভা। দ্বিতীয় নতুন বলে তাঁকে সাজঘরে ফেরান নাসিম শাহ। ভেতরের দিকে ঢোকা বলে ব্যাট ও প্যাডের মধ্যে ফাঁক রেখেছিলেন ৬১ বলে ৩৩ রান করে ডি সিলভা।

এক বল পরই অবশ্য দ্বিতীয় উইকেটটিও পেতে পারতেন নাসিম। স্লিপে ডিকভেলার সহজতম ক্যাচটি ফেলেন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। ডিকভেলা তখন ব্যাটিং করছিলেন ২৪ রানে। সেই ডিকভেলা দিনশেষে ৪৩ বলে ৪২ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত আছেন।

দিনের শেষ ওভারের আগের ওভারে হাসান আলীর বলে ডিকভেলার বিপক্ষে এলবিডব্লুর রিভিউ নেন বাবর। তবে ‘দায়মোচন’-এর সুযোগ পাননি তিনি। ডিকভেলা অক্ষতই আছেন, খেলছেন আরেকটি প্রতি আক্রমণের ইনিংস। দিন শেষে তাঁর সঙ্গী ডুনিথ ওয়েলালাই অপরাজিত আছেন ৯ বলে ৬ রান করে।

পাকিস্তানের পক্ষে ৭১ রানের বিনিময়ে দুই উইকেট নেন মোহাম্মদ নওয়াজ। একটি করে উইকেট পেয়েছেন নোমান আলী, ইয়াসির শাহ ও নাসিম শাহ।


শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান এর স্কোরবোর্ড

শ্রীলঙ্কা (১ম ইনিংস) – ৩১৫/৬ (৮৬.০)


শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান


শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান ম্যাচের একাদশ

শ্রীলঙ্কা দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), নিরোশান ডিকভেলা (উইকেট রক্ষক), কুশল মেন্ডিস, ওশাদা ফার্নান্দো, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, রমেশ মেন্ডিস, দিনেশ চান্ডিমাল, প্রবাথ জয়াসুরিয়া, অসিথা ফার্নান্দো, এবং ডুনিথ ওয়েলালাই
পাকিস্তান বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেট রক্ষক), আবদুল্লাহ শফিক, ফাওয়াদ আলম, আগা সালমান, ইমাম-উল হক, মোহাম্মদ নওয়াজ, নোমান আলী, হাসান আলী, ইয়াসির শাহ এবং নাসিম শাহ।

আরো ব্লগ