Skip to main content

আজকের ট্রেন্ডিং

রঞ্জি ট্রফিতে ট্রিপল সেঞ্চুরি করে রেকর্ড গড়লেন পৃথ্বী 

রঞ্জি ট্রফিতে ট্রিপল সেঞ্চুরি করে রেকর্ড গড়লেন পৃথ্বী 

দারুণ ইনিংসে বছর শুরু করলেন ভারতের তরুণ ব্যাটার পৃথ্বীশ। রঞ্জি ট্রফিতে ট্রিপল সেঞ্চুরি করে তাক লাগিয়ে দিলেন ভারতের ক্রিকেটে । আসামের বিপক্ষে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত এক ইনিংস  খেলেন ভারতীয় এই ব্যাটার। ৩৭৯ রানের ইনিংস খেলে তিনি ভেঙে ফেললেন রঞ্জি ট্রফিতে সর্বোচ্চ রান সংগ্রকারীর ইতিহাসে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা সঞ্জয় মাঞ্জরেকারের রেকর্ড। এরপর থেকেই খবরের শিরোনামে ভারতের এই তরুন তুর্কি। পাশাপাশি প্রশংসাও কুড়াচ্ছেন তিনি। 

রঞ্জি ট্রফিতে এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের মালিক বাউসাহেব নিম্বলকর। ১৯৪৮ – ৪৯ মৌসুমে রঞ্জি ট্রফিতে ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ৪৪৩ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। সৌরাষ্ট্রের বিপক্ষে মহারাষ্ট্রের হয়ে ব্যাট হাতে আগুন ঝরান নিম্বলকর। তার এই রেকর্ড এখনও পর্যন্ত কেউ ভাঙতে পারেনি। ভারতের ক্রিকেটে অনেক রথি মহা রথিরা এলেও নিম্বলকরের রেকর্ড অক্ষতই থেকে গেছে।

পৃথ্বীর এই ইনিংসের আগে রঞ্জির ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের মালিক ছিলেন সঞ্জয় মাঞ্জেরেকার। ১৯৯০ – ৯১ মৌসুমে রঞ্জি ট্রফিতে ব্যক্তিগত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৭৭ রান করেন তিনি। যা এতদিন কেউ ভাঙতে পারেনি। আর এবার এই কাজটি করলেন পৃথ্বী। ৪৩ টি চার আর ৩ ছক্কার মাধ্যমে ৩৭৯ রান তোলেন তিনি। ঝলমলে এই ইনিংসের মধ্য দিয়ে তিনি টপকে গেলেন সঞ্জয় মাঞ্জরেকারকে। এরপর থেকেই প্রশংসায় ভাসছেন এই ব্যাটার। 

তবে এবারের রঞ্জি ট্রফিতে শুরুতে রান পাচ্ছিলেন না পৃথ্বী। কিন্তু তার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন গৌতম গম্ভীর। পৃথ্বীকে ছন্দে ফিরতে নির্বাচক, টিম ম্যানেজমেন্টদের সাহায্য করা উচিত বলে জানিয়েছিলেন গম্ভীর। তিনি বলেছিলেন, ” পৃথ্বীশ এর মতো খেলোয়াড় ছন্দে থাকা দরকার। ওর আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরু হয়েছে অসাধারণভাবে, দারুণ প্রতিভা আছে। বয়সটা ওর পক্ষে আছে, সে টিম ইন্ডিয়ার লম্বা রেসের ঘোড়া হতে পারে।  তার মতো একজনকে সমর্থন দিয়ে যাওয়া উচিত। তাকে ছন্দে ফিরতে নির্বাচক এবং টিম ম্যানেজমেন্টের সহায়তা করা উচিত। বোর্ড থেকে সে সাপোর্ট পেলে ভারতকে অনেক কিছুই দিতে পারে। “

উল্লেখ্য, ভারতের ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে মুম্বাইয়ের প্রতিনিধিত্ব করেন ২৩ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। দলে তিনি মূলত ডানহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলে থাকেন। ২০১৩ সালে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান করেছিলেন তিনি। আন্তর্জাতিক অভিষেক টেস্টেও সেঞ্চুরি করেন প্রতিভাবান এই উদীয়মান ক্রিকেটার। পরে অবশ্য জাতীয় দল থেকে ছিটকে যান৷ তবে তার যে প্রতিভা সেটা বিকশিত হলে ভারতের ক্রিকেট আরো সমৃদ্ধ হবে বলেও মনে করেন অনেকে।

আরো আজকের ট্রেন্ডিং

ক্রিকেট ফ্রি টিপস | ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া, ২০২৩: ১ম টেস্ট

ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া এর ম্যাচ বিবরণ ম্যাচ: ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া, ১ম টেস্ট | অস্ট্রেলিয়ার ভারত সফর  তারিখ: বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ সময়: ০৯:০০ (GMT +৫) / ০৯:৩০ (GMT +৫.৫) /...

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিঞ্চ অধ্যায়ের সমাপ্তি

অনেক দিন ধরেই টেস্ট এবং ওয়ানডে খেলেন না অ্যারন ফিঞ্চ। টেস্ট এবং ওয়ানডের পর, এবার টি-টোয়েন্টি থেকেও অবসর নিলেন অস্ট্রেলিয়ার মারকুটে এই ওপেনার। গেল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময়েই সাবেক অধিনায়ক জানান,...

বিপিএল মাতাতে বাংলাদেশে এলেন রাসেল – নারাইন

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) নবম আসরে তারকা সংকট হবে, তা আগে থেকে জানতো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। অবশ্য সেই সংকটের যথেষ্ট কারণও আছে। বিপিএলের সঙ্গে একই সময়ে চলছে দক্ষিণ আফ্রিকার...

অ্যাশেজ নয়, বোর্ডার – গাভাস্কার ট্রফি জেতাই কঠিন

অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে মর্যাদার লড়াই হিসেবে দেখা হয় অ্যাশেজ সিরিজকে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের সেই টেস্ট সিরিজ হয়ে আসছে যুগ যুগ ধরে। বরাবরই অ্যাশেজ সিরিজে লড়াইয়ের আমেজ, দুই দেশ ছাড়িয়ে গোটা...