Skip to main content

ম্যাচ হাইলাইটস

ক্রিকেট হাইলাইটস, ৩০ ডিসেম্বর: বিবিএল ২০২২/২৩ (ম্যাচ ২১) – মেলবোর্ন রেনেগেডস বনাম সিডনি সিক্সার্স

ক্রিকেট হাইলাইটস, ৩০ ডিসেম্বর: বিবিএল ২০২২/২৩ (ম্যাচ ২১) – মেলবোর্ন রেনেগেডস বনাম সিডনি সিক্সার্স

মেলবোর্ন রেনেগেডস বনাম সিডনি সিক্সার্স (ম্যাচ ২১) – হাইলাইটস

গতকাল (শুক্রবার) হওয়া বিবিএল ২০২২/২৩ এর ২১ তম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল মেলবোর্ন রেনেগেডস ও সিডনি সিক্সার্স। ঐ ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে লো-স্কোরিং একটি লক্ষ্য দাড় করায় মেলবোর্ন রেনেগেডস। কিন্তু ২য় ইনিংসে ব্যাটিং এ নেমে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষ হয়ে যাওয়ার আগেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় সিডনি সিক্সার্স। সেই সাথে এই ম্যাচ জিতে পয়েন্ট টেবিলের ৩য় স্থানে আছে সিডনি সিক্সার্স এবং ম্যাচ হেরে ৫ম স্থানে আছে মেলবোর্ন রেনেগেডস। এছাড়া ভালো বোলিং এর সুবাদে সিডনি সিক্সার্স -এর হয়ে ম্যান অফ দ্যা ম্যাচের খেতাব জিতে নেন ক্রিস জর্ডান।

টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নেন মেলবোর্ন রেনেগেডস এবং সিডনি সিক্সার্সকে আমন্ত্রন জানায় বোলিং এর জন্য। প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে সিডনি সিক্সার্সের বোলিং-এর তোপে পড়ে শুরুটা ভালো করতে পারেন নেই মেলবোর্ন রেনেগেডস। ৬ বল খেলে রানের খাতা না খুলেই সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক নিক ম্যাডিনসন। এরপর দলীয় ২৮ রানের মাথায় পড়ে তাদের ২য় উইকেট। ক্যাচ আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন মার্টিন গাপটিল। ১৮ বল খেলে করেছিলেন ১২ রান। এরপর শন মার্শ ও অ্যারন ফিঞ্চ দুইজনই কিছুক্ষন মাঠে থাকলেও ১০ম ওভারের ৪র্থ বলে ক্যাচ আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন শন মার্শ। তাদের হয়ে সব থেকে বেশি রান করেছিলেন তিনি। ৩ চার ও ১ ছয়ের সাহায্যে ২৯ বলে ৩৫ রান করেছিলেন তিনি। এরপর দলীয় ৮২ রানের মাথায় পড়ে তাদের ৪র্থ উইকেট। ১৫ বল খেলে ১৭ রান করে মাঠ থেকে বিদায় নেন অ্যারন ফিঞ্চ। এরপর ৮ বলে ৬ রান করে মাঠ ছাড়েন উইল সাদারল্যান্ড। ১৯ তম ওভারের ১ম বলে ক্যাচ আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন জোনাথন ওয়েলস। ২ চারের সাহায্যে ৩১ বলে করেছিলেন ২৮ রান। এর ১ ওভার পরেই ক্যাচ আউট হন ৩ বলে ৫ রান করা পিটার হ্যান্ডসকম্ব। এছাড়া ৬ বল খেলে ১১ রানে অপরাজিত থাকেন আকিল হোসেইন এবং ৪ বল খেলে ৬ রানে অপরাজিত থাকেন টম রজার্স। 

সিডনি সিক্সার্সের পক্ষে ২টি করে উইকেট নেন ক্রিস জর্ডান ও হেইডেন কের। এছাড়া ১টি করে উইকেট নেন জ্যাকসন বার্ড, বেন দ্বারশুইস, ও ইজহারুল হক নাভিদ। 

১২৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে, জবাবে মাত্র ৪ উইকেট হারিয়ে ২.১ ওভার হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় সিডনি সিক্সার্সরা। তাদের হয়ে সবথেকে বেশি রান করেন জেমস ভিন্স। ৪ চার ও ২ ছয়ের সাহায্যে ৩১ বলে ৩৯ রান করেন তিনি। ৩৫ বলে ৩৮ রান করেন কার্টিস প্যাটারসন। সাথে মেরেছিলেন ৩টি চার ও ১টি ছয়। ৪ চারের সাহায্যে ১৫ বলে ২১ রান করেন ড্যানিয়েল ক্রিশ্চিয়ান। ১৯ বল খেলে ১৫ রান করেন জর্ডান সিল্ক। এছাড়া ২ রান করেন জশ ফিলিপ এবং অধিনায়ক ময়েসিস হেনরিকস করেন ২ রান। শেষে ৯ রান এক্সট্রা সহ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন তারা। 

মেলবোর্ন রেনেগেডসের পক্ষে ৪ ওভারে ২৪ রান খরচায় ২ টি উইকেট নেন আকিল হোসেইন। এছাড়া ১টি করে উইকেট নেন টম রজার্স ও উইল সাদারল্যান্ড।


মেলবোর্ন রেনেগেডস বনাম সিডনি সিক্সার্স এর স্কোরবোর্ড

মেলবোর্ন রেনেগেডস – ১২৪/৭ (২০.০)  

সিডনি সিক্সার্স – ১২৬/৪ (১৭.৫)  

ফলাফল – সিডনি সিক্সার্স ৬ উইকেটে জয়ী 

প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ – ক্রিস জর্ডান


ক্রিকেট হাইলাইটস, ৩০ ডিসেম্বর: বিবিএল ২০২২/২৩ (ম্যাচ ২১) – মেলবোর্ন রেনেগেডস বনাম সিডনি সিক্সার্স


মেলবোর্ন রেনেগেডস বনাম সিডনি সিক্সার্স

মেলবোর্ন রেনেগেডস নিক ম্যাডিনসন (অধিনায়ক), পিটার হ্যান্ডসকম্ব (উইকেটরক্ষক), অ্যারন ফিঞ্চ, মার্টিন গাপটিল, জোনাথন ওয়েলস, শন মার্শ, উইল সাদারল্যান্ড, আকিল হোসেইন, কেন রিচার্ডসন, টম রজার্স, মুজিব উর রহমান
সিডনি সিক্সার্স ময়েসিস হেনরিকস (অধিনায়ক), জশ ফিলিপ (উইকেটরক্ষক), জেমস ভিন্স, কার্টিস প্যাটারসন, ড্যানিয়েল ক্রিশ্চিয়ান, জর্ডান সিল্ক, ক্রিস জর্ডান, হেইডেন কের, জ্যাকসন বার্ড, বেন দ্বারশুইস, ইজহারুল হক নাভিদ

আরো ব্লগ

ক্রিকেট ফ্রি টিপস | ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া, ২০২৩: ১ম টেস্ট

ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া এর ম্যাচ বিবরণ ম্যাচ: ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া, ১ম টেস্ট | অস্ট্রেলিয়ার ভারত সফর  তারিখ: বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ সময়: ০৯:০০ (GMT +৫) / ০৯:৩০ (GMT +৫.৫) /...

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিঞ্চ অধ্যায়ের সমাপ্তি

অনেক দিন ধরেই টেস্ট এবং ওয়ানডে খেলেন না অ্যারন ফিঞ্চ। টেস্ট এবং ওয়ানডের পর, এবার টি-টোয়েন্টি থেকেও অবসর নিলেন অস্ট্রেলিয়ার মারকুটে এই ওপেনার। গেল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময়েই সাবেক অধিনায়ক জানান,...

বিপিএল মাতাতে বাংলাদেশে এলেন রাসেল – নারাইন

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) নবম আসরে তারকা সংকট হবে, তা আগে থেকে জানতো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। অবশ্য সেই সংকটের যথেষ্ট কারণও আছে। বিপিএলের সঙ্গে একই সময়ে চলছে দক্ষিণ আফ্রিকার...

অ্যাশেজ নয়, বোর্ডার – গাভাস্কার ট্রফি জেতাই কঠিন

অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে মর্যাদার লড়াই হিসেবে দেখা হয় অ্যাশেজ সিরিজকে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের সেই টেস্ট সিরিজ হয়ে আসছে যুগ যুগ ধরে। বরাবরই অ্যাশেজ সিরিজে লড়াইয়ের আমেজ, দুই দেশ ছাড়িয়ে গোটা...