Skip to main content

ধোনির অধিনায়কত্ব কেড়ে নিতে চেয়েছিলেন কোহলি! 

ধোনির অধিনায়কত্ব কেড়ে নিতে চেয়েছিলেন কোহলি! 

দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের কারণে বরাবরই আলোচনার শীর্ষে থাকেন বিরাট কোহলি। মাঝে মাঝে সমালোচনার শিকারও হন তিনি। এবার ভারতীয় এই রান মেশিনকে নিয়ে বিস্ফোরক একটি ব্যাপার  প্রকাশ করলেন ভারতের সাবেক  ফিল্ডিং কোচ শ্রীধর। ক্ষমতা পাওয়ার জন্য কোহলিধোনির সঙ্গে কী কান্ড ঘটিয়েছিলেন সেই রহস্য ফাঁস হলো শ্রীধরের লেখা বইয়ে। এরপর থেকেই ভারতীয় ক্রিকেটে তোলপাড় চলছে 

২০১৪ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনি লাল বলের ক্রিকেটকে বিদায় বলে দেন। এরপর ক্রিকেটের এই  ফরম্যাটে দায়িত্বে আসেন বিরাট কোহলি।  ভারতীয় ক্রিকেট প্রসঙ্গে  নিজের সময় নিয়ে লেখা শ্রীধরের সেই বইয়ে দাবি করা হয়, এক ফরম্যাটে অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়ার পর ক্ষমতার লোভী হয়ে উঠেছিলেন কোহলি। এমনকি খুব কম সময়ের মধ্যে সব ফরম্যাটের অধিনায়কত্ব পাওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন তিনি। 

শ্রীধরের এই বইয়ের নামকোচিং বেওন্ড  – মাই ডেজ উইথ ইন্ডিয়ান ক্রিকেট টিম যদিও এই বইটি তিনি নিজে লেখেননি। তার কথায় বইটি লেখেন আর কৌশিক। তার এই বইয়ের সূত্রে জানা যায়, লাল বলের নেতৃত্ব পাওয়ার দুই বছরের মাথায় সাদা বলের ক্রিকেটেও নেতৃত্ব পাওয়ার জন্য উঠেপড়ে লেগেছিলেন কোহলি। শ্রীধর তার বইতে লিখেছেন২০১৬ সালে সাদা বলের ক্রিকেটে নেতৃত্ব পাওয়ার জন্য উঠেপড়ে লেগেছিলেন বিরাট কোহলি। সে এমন কিছু বলেছিল যা স্পষ্ট করেছিল যে সে সব ফরম্যাটে  অধিনায়কত্ব পেতে চায়। ” 

তবে কোহলির এই ব্যাপারটি তৎকালীন কোচ রবি শাস্ত্রী বেশ ভালোভাবেই সামাল দিয়েছিলেন  – এমন তথ্যও পাওয়া যায় ওই বইয়ে। বইতে লেখা হয়েছেরবি শাস্ত্রী তাকে বলেছিলো  দেখো বিরাট, তুমি আপাতত খেলাতেই মন দাও। ধোনি তোমার হাতে লাল বলের নেতৃত্ব তুলে দিয়েছে, তুমি এখন শুধু এটা নিয়েই ভাবো।  তুমি তাকে সম্মান করো, নিজের খেলার প্রতি সচেতন হও। সঠিক সময় আসলে সে তোমাকে সাদা বলের নেতৃত্বও দিয়ে দেবে, এটা নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। এখন যদি তুমি ধোনিকে সম্মান না করো, তাহলে তুমি যখন অধিনায়ক হবে তখন দলের অন্যরাও তোমাকে সম্মান করবে না। যাই হোক, তুমি ধোনিকে সম্মান করো। নেতৃত্বের পেছনে দৌঁড়িও না, তুমি ভালো খেললে এটা এমনিতেই তোমার কাছে আসবে।

এমনিতে , রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে কোহলির খুব ভালো সম্পর্ক ছিলো। এমনকি কোহলি নেতৃত্ব হাতে পাওয়ার পর অনিল কুম্বলেকে সরিয়ে শাস্ত্রীকে কোচের পদে এনেছিলেন। এরপর শাস্ত্রী কোচের পদ ছাড়ার পর কোহলিও টিটোয়েন্টির নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন। ২০১৭ সালে ক্রিকেটের সব ফরম্যাটেই দায়িত্ব পেয়েছিলেন কোহলি। যদিও পরবর্তীতে তিনি টিটোয়েন্টির দায়িত্ব থেকে সরে আসার পর টেস্ট ওয়ানডে থেকেও তাকে সরিয়ে দেওয়া হয়। শ্রীধরের বইতে এই প্রসঙ্গ নিয়ে অবশ্য মুখ খোলেননি কোহলি এবং ধোনি। তবে বিষয়টি নিয়ে তোলাপাড় চলছে ক্রিকেট বিশ্বে।

আরো আজকের ট্রেন্ডিং

আন্দ্রে রাসেল: আল্টিমেট টি-টোয়েন্টি অলরাউন্ডার

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের আরেক নাম আন্দ্রে রাসেল। রাসেল তার বিস্ফোরক ব্যাটিং, বহুমুখী বোলিং এবং গতিশীল ফিল্ডিংয়ের কারণে গেমের সেরা অলরাউন্ডারদের একজন হিসাবে খ্যাতি অর্জন করেছেন। তিনি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে একজন সত্যিকারের গেম-চেঞ্জার,...

কিংবদন্তি পারফরমার: আইপিএল ইতিহাসের সবচেয়ে মূল্যবান খেলোয়াড়ের রেকর্ড

কিংবদন্তি পারফরমার: আইপিএল ইতিহাসের সবচেয়ে মূল্যবান খেলোয়াড়ের রেকর্ড ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ক্রিকেটে বিপ্লব এনেছে, সারা বিশ্বের খেলোয়াড়দের প্রতিযোগিতামূলক ও বিনোদনমূলক ফরম্যাটে তাদের প্রতিভা প্রদর্শনের জন্য একটি প্ল্যাটফর্ম সরবরাহ করে।...

দর্শনীয় ক্যাচ এবং সেভ: আইপিএল ইতিহাসে ফিল্ডিং রেকর্ড পারফরম্যান্স!

ফিল্ডিং ক্রিকেটের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ, যা প্রায়ই একটি দলের পক্ষে খেলার গতিপথ পরিবর্তন করে। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) এ, যেখানে প্রতিটি রান বাঁচানো একটি পার্থক্য তৈরি করতে পারে, অসাধারণ ফিল্ডিং...

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪-এ নতুন মুখ | ভবিষ্যতের প্রতিভা

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪ ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে বিশ্বব্যাপী ক্রিকেটপ্রেমীরা গুঞ্জন। নতুন প্রতিভা সবসময় টুর্নামেন্টে একটি আকর্ষণীয় উপাদান যোগ করে, তা নির্বিশেষে প্রতিষ্ঠিত তারকারা যে ভূমিকা পালন করবে। এবারের প্রতিযোগিতায়...