Skip to main content

এসএটি২০ এর শিরোপা জিতল সানরাইজার্স ইস্টার্ন ক্যাপ

এসএটি২০ এর শিরোপা জিতল সানরাইজার্স ইস্টার্ন ক্যাপ

প্রায় এক মাস ধরে চলার পর, অবশেষে দক্ষিণ আফ্রিকার ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি লিগের (এসএটি২০) এর  পর্দা নামল। প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হওয়া এই টুর্নামেন্টে শিরোপা জিতে নিয়েছে সানরাইজার্স ইস্টার্ন ক্যাপ। অবশ্য এসএটি২০ এর ফাইনাল ম্যাচটি হয়েছে লো স্কোরিং ম্যাচ। যা একেবারেই অপ্রত্যাশিত ছিলো দর্শকদের কাছে। টি টোয়েন্টির এই ধুমধাড়াক্কার যুগে, যেকোনো টি-টোয়েন্টি লিগের ফাইনালে  দর্শকদের বরাবরই চাওয়া থাকে, দুদলের চার – ছক্কার ফুলঝুরি। 

রবিবার রাতে জোহানেসবার্গের ওয়ান্ডার্স স্টেডিয়ামে, এসএটি২০ এর ফাইনালে মুখোমুখি হয় প্রিটোরিয়া ক্যাপিটালস এবং সানরাইজার্স। যেখানে টসে জিতে আগে প্রিটোরিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠান সানরাইজার্স অধিনায়ক এইডেন মার্করাম। অধিনায়কের সিদ্ধান্ত যথার্থ প্রমাণ করেছেন দলটির বোলার ভ্যান ডের মেরউই। ৪ উইকেট শিকার করে, প্রিটোরিয়াকে ১৩৫ রানেই আটকে দিয়েছেন তিনি।

১৩৬ রানের মামুলি লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে, ভালো শুরু পায় সানরাইজার্স। ওপেনার টেম্বা বাভুমা দ্রুত ফিরে গেলেও, অপর প্রান্তে অর্ধশতক হাঁকিয়েছেন অ্যাডাম রসিংটন। মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের সঙ্গে ছোট ছোট জুটি গড়ে, সানরাইজার্সের জয়ের পথ সুগম করে দেন রসিংটন। শেষ পর্যন্ত ৪ উইকেটের জয়ে, শিরোপার স্বাদ পায় সানরাইজার্স। যদিও ম্যাচসেরা হয়েছেন মেরউই।

দলকে শিরোপা জেতাতে পেরে বেশ খুশি মেরউই। ম্যাচ শেষে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে তিনি বলেন, ” অবিশ্বাস্য একটি দিন। অন্যরকম অনুভূতি। ছেলেরা সবাই অনেক খুশি। আমি চেষ্টা করেছি দলের জন্য অবদান রাখতে। সে অনুযায়ী আমি ভালো খেলতে পেরেছি। এমন বোলিং করতে পেরে আমি সত্যিই অভিভূত। অবিশ্বাস্য লাগছে। সবার সম্মিলিত সমর্থন আমাদের জয়ের মূল ভিত্তি। “

উল্লেখ্য, টুর্নামেন্টের শুরুতে খুব একটা ভালো করতে পারেনি সানরাইজার্স। সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে, শিরোপা নিয়েই ঘরে ফিরছে মার্করামের দল। অবশ্য এই অবিশ্বাস্য অর্জনে, দলের খেলোয়াড়দের কৃতিত্ব দিয়েছেন সানরাইজার্স অধিনায়ক। কঠিন সময়ে এমন কিছু খেলোয়াড় ভালো পারফর্ম করেছেন, তাদের জন্যই টুর্নামেন্টের শিরোপা জয় করা সম্ভব হয়ে বলে মনে করছেন মার্করাম।

আরো আজকের ট্রেন্ডিং

আইপিএল ২০১৩-এ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের আধিপত্য: গোল্ড ব্রিলিয়ান্স দিয়ে জয়ের সিলমোহর!

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ২০১৩ মরসুমে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের আধিপত্য প্রদর্শনের সাক্ষী ছিল, ফাইনাল ম্যাচে তাদের বিজয়ী জয়ের সমাপ্তি ঘটে। তাদের গতিশীল অধিনায়ক, রোহিত শর্মার নেতৃত্বে, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে...

আইপিএল ২০১২-এ কলকাতা নাইট রাইডার্সের রাজত্ব সর্বোচ্চ: গোল্ড ব্রিগেডের জন্য একটি ঐতিহাসিক জয়!

আইপিএল ২০১২-এ কলকাতা নাইট রাইডার্সের রাজত্ব সর্বোচ্চ: গোল্ড ব্রিগেডের জন্য একটি ঐতিহাসিক জয়! ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ইতিহাসে, ২০১২ মৌসুম একটি ঐতিহাসিক অধ্যায় হিসেবে দাঁড়িয়েছে, বিশেষ করে কলকাতা নাইট রাইডার্সের...

চেন্নাই সুপার কিংস ক্লিঞ্চ আইপিএল ২০১১ মুকুট: ইয়েলো টাইটানদের জন্য ব্যাক-টু-ব্যাক গ্লোরি!

চেন্নাই সুপার কিংস ক্লিঞ্চ আইপিএল ২০১১ মুকুট: ইয়েলো টাইটানদের জন্য ব্যাক-টু-ব্যাক গ্লোরি! প্রত্যাশাকে অস্বীকার করে এবং শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বিতা কাটিয়ে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ইতিহাসের ইতিহাসে, ২০১১ মরসুম একটি স্মরণীয় অধ্যায়,...

আইপিএল ২০১০-এ চেন্নাই সুপার কিংসের জয়: হলুদ ব্রিগেডের জন্য একটি গৌরবময় বিজয়!

২০১০ সালটি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত হিসাবে চিহ্নিত হয়েছিল যখন চেন্নাই সুপার কিংস মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে একটি রোমাঞ্চকর ফাইনাল শোডাউনে তাদের প্রথম শিরোপা জিতেছিল। ক্যারিশম্যাটিক মহেন্দ্র সিং...