ব্লগ

ক্রিকেট হাইলাইটস, ১৮ জুলাই: শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান (১ম টেস্ট – ৩য় দিন)

শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান

শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান (প্রথম টেস্ট৩য় দিন)

তৃতীয় দিন শেষে গল টেস্টে চালকের আসনে আছে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে আলোকস্বল্পতায় ৯ উইকেটে ৩২৯ রান নিয়ে ৩য় দিনের খেলা শেষ করেছে লঙ্কানরা। ফলে তাদের লিড দাঁড়িয়েছে ৩৩৩ রান। উইকেটে দিনেশ চান্ডিমাল ৮৬ এবং প্রবাথ জয়াসুরিয়া ৪ রানে অপরাজিত রয়েছেন।

ওশাদা ফার্নান্দো ও কুশল মেন্ডিসের অর্ধশতকের পর ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেছেন দারুণ ফর্মে থাকা চান্দিমাল। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে গল টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানো চান্দিমাল পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে হাফ সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছিলেন। দ্বিতীয় ইনিংসেও সেঞ্চুরির পথে আছেন তিনি। সঙ্গে আছে শেষ ব্যাটার হিসেবে নামা বাঁহাতি স্পিনার প্রবাথ জয়াসুরিয়া।

১ উইকেটে ৩৬ রান নিয়ে ২য় দিনের খেলা শেষ করেছিল স্বাগতিকরা। ওপেনার ওশাদা ১৭ এবং কাসুন রাজিথা ৩ রানে অপরাজিত থেকে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করেন। মধ্যাহ্নভোজ বিরতির আগে নাইটওয়াচম্যান হিসেবে আগের দিন নামা রাজিথাকে (৭) সাজঘরে ফেরান স্পিনার মোহাম্মদ নেওয়াজ।

কিন্তু মড়ক লাগে দ্বিতীয় সেশনে। ৩য় উইকেটে কুশল ও ওশাদা মিলে ৯১ রানের অসাধারণ একটি জুটি গড়ে তোলেন। তবে মধাহ্ন বিরতির পরপরই টেস্ট ক্যারিয়ারের ৬ নম্বর ফিফটি তোলা ওশাদা’কে সাজঘরে ফেরান ইয়াসির শাহ। তার ৬৪ রানের ইনিংসে ছিল ৬টি চার ও একটি ছয়ের মার।

ওশাদা’র বিদায়ের পর অবশ্য আর কোন বড় জুটির দেখা পায়নি লঙ্কানরা। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসকে ৯ রানে সাজঘরে ফেরান নেওয়াজ। এর কিছুক্ষণ পর ইয়াসির’র এর বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ৭৬ রান করা কুশল। দ্বিতীয় সেশনে ৫ উইকেট হারানোর বিপরীতে ওভারপ্রতি ৪.৪ গড়ে ১২৫ রান তুলেছে শ্রীলঙ্কা। যেখানে এক প্রান্তে চান্ডিমাল প্রতিরোধের দেয়াল গড়ে তোলেন।

তৃতীয় সেশনে চান্ডিমাল লড়েছেন লোয়ার অর্ডারের ব্যাটসম্যানদের নিয়ে। ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার সঙ্গে ৪০ রানের জুটি ভাঙার পর রমেশ মেন্ডিসের সঙ্গে ৩২, মহীশ তিকশানার সঙ্গে ৪১ এবং প্রবাথ জয়াসুরিয়ার সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন ২১ রানের জুটিতে দিন পার করেন চান্ডিমাল। যেখানে ধনাঞ্জয়া ২০, রমেশ ২২, নিরোশান ডিকভেলা ১২ এবং তিকশানা ১১ রান করে আউট হন।

এগারোয় নামা জয়াসুরিয়া’র সঙ্গে গড়া জুটির মধ্যে ১৭ রানই এসেছে চান্ডিমালের ব্যাট থেকে। অর্থাৎ, এই স্পিনার ব্যাটিংয়ে থাকতে রান তোলার দায়িত্বটা নিজের কাঁধেই তুলে নেন লঙ্কান মিডল অর্ডারের অন্যতম ব্যাটার চান্ডিমাল। ২ ছক্কা ও ৫ চারে ১২১ বলে ৮৬ রানের ইনিংসটি সাজান এই ব্যাটার।

সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ ফর্মেই আছেন ৩২ বছর বয়সী এই সাবেক অধিনায়ক। টেস্টে শেষ সাত ইনিংসে তাঁর স্কোর—৬৬, ৩৯*, ১২৪, ০, ১৩, ২০৬*, ৭৬, ৮৬*।

ক্যারিয়ারের চতুর্থ টেস্ট খেলতে নামা পাকিস্তানের বাঁহাতি স্পিনার মোহাম্মদ নওয়াজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এই প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেটের দেখা পেলেন। ৮৮ রানে নিয়েছেন ৫ উইকেট নিয়েছেন তিনি। ১২২ রানে ৩ উইকেট নেন আরেক স্পিনার ইয়াসির শাহ। এছাড়া হাসান আলী এবং নাসিম শাহ ১টি করে উইকেট তুলে নেন।

তবে চান্ডিমাল রুখে দাঁড়ানোয় এই টেস্টে জয়ের সম্ভাবনা থেকে বেশ দূরে সরে গেছে পাকিস্তান। গলে সর্বোচ্চ ২৬৮ রান তাড়া করে জয়ের নজির রয়েছে। চতুর্থ ইনিংসে কোনো দলের সর্বোচ্চ স্কোর ৩০০ রান। আজও স্পিনাররা টার্ন ও বাউন্স পেয়েছে। তাই স্বাভাবিক ভাবেই ৪র্থ দিন উইকেট আরও কঠিন হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।


শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান এর স্কোরবোর্ড

শ্রীলঙ্কা (১ম ইনিংস) – ২২২/১০ (৬৬.১)

পাকিস্তান (১ম ইনিংস) – ২১৮/১০ (৯০.৫)

শ্রীলঙ্কা (২য় ইনিংস) – ৩২৯/৯ (৯৬.০)



শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান ম্যাচের একাদশ

শ্রীলঙ্কা দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), নিরোশান ডিকভেলা (উইকেট রক্ষক), কুশল মেন্ডিস, ওশাদা ফার্নান্দো, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, দিনেশ চান্ডিমাল, রমেশ মেন্ডিস, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, মহীশ তিকশানা, কাসুন রাজিথা, এবং প্রবাথ জয়াসুরিয়া।
পাকিস্তান বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেট রক্ষক), আবদুল্লাহ শফিক, আজহার আলী, আগা সালমান, মোহাম্মদ নওয়াজ, ইমাম-উল-হক, ইয়াসির শাহ, শাহিন আফ্রিদি, হাসান আলী, এবং নাসিম শাহ।

 

আরো ব্লগ