ব্লগ

ক্রিকেট হাইলাইটস, ২৯ জুন: শ্রীলঙ্কা বনাম অস্ট্রেলিয়া (১ম টেস্ট – ১ম দিন)

শ্রীলঙ্কা বনাম অস্ট্রেলিয়া

শ্রীলঙ্কা বনাম অস্ট্রেলিয়া (প্রথম টেস্ট – ১ম দিন)

স্পিনিং ট্র্যাকে অস্ট্রেলিয়াকে ধরাশায়ী করার জন্য নিজেদের দলটা পুরোপুরি স্পিন নির্ভর সাজিয়েছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। তবে, মাঠের পারফরম্যান্সে বোঝা যাচ্ছে- অসি স্পিনের কথা খুব বেশি চিন্তা করেনি লঙ্কানরা। কারণ, গল টেস্টের প্রথম দিন টস জিতে ব্যাট করতে নেমে অসি স্পিন ঘূর্ণিতে ধরাশায়ী হয়েছে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা।

নাথান লায়ন এবং মিচেল সোয়েপসনের ঘূর্ণিতে মাত্র ২১২ রানে অলআউট হয়ে গেছে শ্রীলঙ্কা। মিডল অর্ডারে কেবল নিরোশান ডিকভেলাই কিছুটা প্রতিরোধ গড়তে পেরেছেন। জবাবে ব্যাটিং করতে নেমে ২৫ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ৯৮ রান সংগ্রহ করে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেছে অস্ট্রেলিয়া। এখনও স্বাগতিকদের থেকে ১১৪ রানে পিছিয়ে আছে সফরকারীরা।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে লঙ্কানদের দুই ওপেনার ভালো শুরুর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। কিন্তু ৩৮ রানের মাথায় পাথুম নিশাঙ্কাকে ফিরিয়ে দিয়ে লঙ্কানদের ভরাডুবির সূচনা করেন অসি অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। ২৩ রান করেন নিশাঙ্কা। অসিদের ২য় ব্রেকথ্রু এনে দেন মিচেল স্টার্ক। তাঁর দুর্দান্ত ডেলিভারিতে মাত্র ৩ রান করে সাজঘরে ফিরেন কুশল মেন্ডিস।

প্রথম সেশনটা মন্দ কাটেনি লঙ্কানদের, কেননা ২ উইকেট হারিয়ে ৬৮ রান তুলে ফেলে তারা। তবে দ্বিতীয় সেশনে দুই স্পিনার লায়ন ও সোয়েপসনের তোপে পড়ে শ্রীলঙ্কা। লায়নের বলে গালিতে ডেভিড ওয়ার্নারের হাতে ক্যাচ দেন লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে (২৮)।

কিছুক্ষণ পর সোয়েপসন টানা দুই বলে ধনঞ্জয়া ডি সিলভা (১৪) ও দিনেশ চান্ডিমালকে (০) সাজঘরে পাঠান। দুইটি ডেলিভারিই ছিল দুর্দান্ত, লেগ স্পিনারের জন্য যা ‘পারফেক্ট’—মিডল-লেগে পড়ে টার্ন করে বেরিয়ে যাওয়ার আগে ছুঁয়ে গেছে ব্যাটের কানা।

এরপর উইকেটে আসেন ডিকভেলা। তবে ৯৭ রান তুলতে ততক্ষণে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে শ্রীলঙ্কা। এসেই প্রতি-আক্রমণ শুরু করেন তিনি। অন্য প্রান্তে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস (৭১ বলে ৩৯) লায়নের দ্বিতীয় শিকার হলেও ডিকভেলা থামেননি। মাত্র ৪২ বলে পূর্ণ করেন অর্ধশতক, ৬ উইকেটে ১৯১ রান নিয়ে চা-বিরতিতে যায় স্বাগতিকরা।

বিরতির পর অবশ্য আবার শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং আক্রমণ চিড়ে ঢুকে পড়েন লায়নরা। প্রথমে ভাঙে রমেশ মেন্ডিসের সঙ্গে ডিকভেলার ৫৪ রানের জুটি, মেন্ডিসের (২২) উইকেটটি অস্ট্রেলিয়া পায় রিভিউ নিয়ে। এরপর ডিকভেলাকেও ফেরান লায়ন, ৫৯ বলে ৫৮ রানের ইনিংসে ডিকভেলা মারেন ৬টি চার।

নিজের পরের ওভারে লাসিথ এমবুলদেনিয়াকে (৬) ফিরিয়ে ৫ উইকেট শিকার করেন লায়ন। ক্যারিয়ারে এ নিয়ে ২০ বার, ইনিংসে ৫ বা এর বেশি উইকেট নিলেন এ অফ স্পিনার। অভিষিক্ত জেফরি ভ্যান্ডারসেকে (৬) ফিরিয়ে ইনিংস শেষ করেন সোয়েপসন। ফলে ৫৯ ওভারে ২১২ রান করে অলআউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা।

নাথান লায়ন ছাড়াও অসিদের হয়ে স্পিনার মিচেল সোয়েপসন ৩টি উইকেট শিকার করেন। এছাড়া প্যাট কামিন্স এবং মিচেল স্টার্ক ১টি করে উইকেট তুলে নেন।

অস্ট্রেলিয়াকে চাপে রাখতে এই টেস্টে তিনজন স্বীকৃত স্পিনার নিয়ে মাঠে নেমেছে শ্রীলঙ্কা। যেখানে প্রথম দিন ২৫ ওভারের মধ্যে ২৪ ওভারই করেছেন লঙ্কান স্পিনাররা। তবে ব্যাটিংয়ে নেমে ইতিবাচক শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। ৯ ওভারেই উসমান খাজা ও ডেভিড ওয়ার্নারের উদ্বোধনী জুটিতে ৪৭ রান তুলে নেয় তারা।

শ্রীলঙ্কাকে প্রথম ব্রেকথ্রু এনে দেন রমেশ মেন্ডিস, তাঁর আর্ম বলে ২৪ বলে ২৫ রান করে সাজঘরে ফিরেন ওয়ার্নার। ২য় উইকেটে মারনাস লাবুশেন ও খাজা মিলে ৩৭ বলে ২৮ রানের জুটি গড়ে তোলেন। মেন্ডিসকে রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে পয়েন্টে ক্যাচ হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেন লাবুশেন (১৩)।

এরপর ৬ রান করে রানআউট হন স্টিভেন স্মিথ। দিন শেষে খাজা ৫ বাউন্ডারিতে, ৮৬ বলে ৪৭ রান করে অপরাজিত আছেন। তাঁর সঙ্গী হিসেবে ৬ রান করে উইকেটে আছেন ট্র্যাভিস হেড।


শ্রীলঙ্কা বনাম অস্ট্রেলিয়া এর স্কোরবোর্ড

শ্রীলঙ্কা (১ম ইনিংস) – ১০৩/১০ (৩২.৫)

অস্ট্রেলিয়া (১ম ইনিংস) – ৯৫/২ (৪৮.০)


শ্রীলঙ্কা বনাম অস্ট্রেলিয়া


শ্রীলঙ্কা বনাম অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের একাদশ

শ্রীলঙ্কা দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), নিরোশান ডিকভেলা (উইকেট রক্ষক), পাথুম নিশাঙ্কা, কুশল মেন্ডিস, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, দিনেশ চান্ডিমাল, রমেশ মেন্ডিস, লাসিথ এমবুলদেনিয়া, জেফরি ভ্যান্ডারসে এবং অসিথা ফার্নান্দো।
অস্ট্রেলিয়া প্যাট কামিন্স (অধিনায়ক), অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেট রক্ষক), উসমান খাজা, মারনাস লাবুশেন, ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভেন স্মিথ, ক্যামেরন গ্রিন, ট্র্যাভিস হেড, মিচেল স্টার্ক, মিচেল সোয়েপসন এবং নাথান লায়ন।

আরো ব্লগ