আজকের ট্রেন্ডিং

মেসির ঠিক পেছনেই বিরাট কোহলি?

লিওনেল মেসি এবং বিরাট কোহলি ক্রীড়াজগতের দুই মেগাস্টার। একজন তার ফুটবল জাদু দিয়ে বুদ করে রেখেছেন কোটি কোটি ভক্তকে। অন্যজন তার ব্যাটিং দিয়ে মুগ্ধ করেছে অসংখ্য ক্রিকেট প্রেমি ভক্তদের। তবে এবার এই দুই ভিন্ন  ক্রীড়াবিদের মধ্যে চলছে অন্যরকম এক লড়াই।

দীর্ঘদিনের অপেক্ষার পর এবারের এশিয়া কাপে ছন্দে দেখা গিয়েছে কোহলিকে। ক্যারিয়ারের ৭১ তম সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন  ১০২০ দিন পর। ব্যাটে শতরান আসায় নিজে যেমন উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন, ভক্তমহলেও বইছে আনন্দের জোয়ার। এর প্রভাব পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও। ফ্যান-ফলোয়ারের সংখ্যা বেড়েই চলছে তার। আর এই দিক থেকে লিওনেল মেসির ঠিক  পরেই কিং কোহলির অবস্থান।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফুটবলের ক্ষুদে জাদুকর লিওনেল মেসির ফলোয়ারের সংখ্যা ৩৩.৩ কোটি। আর কোহলির ফলোয়ারের সংখ্যা ৩১ কোটি। ফলোয়ারের দিক দিয়ে লিওনেল মেসির পরেই অবস্থান বিরাট কোহলির। দুই দুনিয়ার দুই তারকার মধ্যে এই ফ্যান-ফলোয়ারের সংখ্যা নিয়েই চলছে টক্কর।

সম্প্রতি টুইটারে কোহলির ফলোয়ারের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫০ মিলিয়ন অর্থাৎ পাঁচ কোটি। এতেই কোহলি রিতীমত রেকর্ড করে ফেললেন ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসে। ভারতের ইতিহাসে এ পর্যন্ত কোহলিই একমাত্র ক্রিকেটার যার ফলোয়ার সংখ্যা টুইটারে এত বেশি।

উল্লেখ্য, ক্রিড়াবিদদের মধ্যে ফলোয়ারের সংখ্যার দিক দিয়ে  ৪৫ কোটি ফলোয়ার নিয়ে শীর্ষে রয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।   ৩৩.৩ কোটি নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছেন লিওনেল মেসি। আর মেসির পরেই ৩১ কোটি নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছেন বিরাট কোহলি। এই মুহূর্তে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ক্রিকেটারদের মধ্যে কোহলির ফ্যান ফলোয়ার ই সবচেয়ে বেশি।

প্রায় ৩ বছর সেঞ্চুরি বঞ্চিৎ ছিলেন কোহলি। এশিয়া কাপ দিয়েই আবার স্বরুপে ফিরেছেন। ধারনা করা হচ্ছে ফর্মে থাকলে কোহলিকে ঘিরে ভক্তদের উন্মাদনা আরো বাড়ত। আর এতে তার ফ্যান ফলোয়ারের সংখ্যাও বাড়ত।

আরো আজকের ট্রেন্ডিং