ব্লগ

ক্রিকেট হাইলাইটস, ২২ সেপ্টেম্বর: সিপিএল ২০২২ (ম্যাচ ২৬) – ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স বনাম সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস

ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স বনাম সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস

ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স বনাম সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস (ম্যাচ ২৬) – হাইলাইটস

সিপিএল ২০২২ এর ২৬তম ম্যাচে গায়ানা’র প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স এর বিপক্ষে ৭ রানের এক দুর্দান্ত জয় পেয়েছে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস। ব্যাট হাতে ৫০ বলে ৭৮ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছেন শেরফেন রাদারফোর্ড।

সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস এর অধিনায়ক ডোয়াইন ব্রাভো টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন এবং ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সকে বোলিং করতে পাঠান। ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬৩ রানের লড়াকু স্কোর সংগ্রহ করে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস।

ব্যাটিংয়ে নেমে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টসের শুরুটা ভালো হয়নি। বোলারদের ঘূর্নি জাদুতে ৮.২ ওভারে ২৮ রান তুলতে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে তারা। ফর্মে থাকা উইকেট রক্ষক ব্যাটার আন্দ্রে ফ্লেচার ১২ বলে মাত্র ২ রান করে আউট হয়ে যান। কেসি কার্টি ১১ বলে করেন ৫ রান। আর এক ওপেনার এভিন লুইস ১৯ বলে ১৫ রান করে সাজঘরে ফিরেন।

২৮ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা দলের হাল ধরেন শেরফেন রাদারফোর্ড এবং ড্যারেন ব্রাভো। এ দুজন মিলে ৪র্থ উইকেটে ৫২ বলে ৬৬ রানের কার্যকারী জুটি গড়ে তোলেন। ২১ বলে ২৩ রান করে ড্যারেন ব্রাভো যখন সাজঘরে ফিরেন তখন দলের স্কোর ১৭ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ৯৪ রান। সেখান থেকে দলের স্কোর ১৬৩ রানে নিয়ে যেতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন রাদারফোর্ড এবং ডিওয়াল্ড ব্রেভিস।

সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস শেষ ৩ ওভারে সংগ্রহ করে ৬৯ রান! ইনিংসের ৩ বল বাকি থাকতে ৬ চার ও ৫ ছক্কায়, ৫০ বলে ৭৮ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে প্যাভিলিয়নে ফিরেন রাদারফোর্ড। অপরদিকে ৬ বলে ৩০ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন ব্রেভিস। যেখানে এই ৩০ রান তুলতে তিনি ৫টি ছক্কা হাকিয়েছেন।

ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের হয়ে ড্যারিন ডুপাভিলন সর্বাধিক ৩টি উইকেট শিকার করেন। এছাড়া আকিল হোসেন, আন্দ্রে রাসেল, এবং সামিত প্যাটেল ১টি করে উইকেট তুলে নেন।

১৬৪ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টসের বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৫৬ রান তুলতেই থেমে যায় ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের ইনিংস। ব্যাটাররা রান পেলেও বোলাদের অসাধারণ স্পেলে তাদের রানের গতি মন্থর হয়ে পড়ে।

ওপেনার টিম সেফার্ট দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৭ বলে ৫৯ রান করেন। যেখানে ৪ চার ও ৩ ছক্কার সাথে তাঁর স্ট্রাইক রেট ছিল ১২৫.৫৩! অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড ৩৬ বলে ৩১ রান করেন। বিগ হিটার আন্দ্রে রাসেল সমান সংখ্যক ২টি করে চার ও ছক্কায়, ১৭ বলে ২৯ রান করেন। এছাড়া পুরান ১০ বলে ১৫ রান করেন।

এই কয়জন ব্যতীত দলের পক্ষে আর কোন ব্যাটার দুই অঙ্কের স্কোর স্পর্শ করতে পারেননি। শেষ ওভারে জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৬ রান। উইকেটে ছিলেন রাসেল ও সামিত প্যাটেল। কিন্তু দুই উইকেট হারিয়ে ৮ রানের বেশি তুলতে পারেনি তারা। ফলে ৭ রানের দুর্দান্ত জয় পেয়ে যায় সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস।

দলের পক্ষে শেলডন কটরেল সর্বোচ্চ ৩টি এবং কেভিন সিনক্লেয়ার ও ডোয়াইন ব্রাভো ২টি করে উইকেট শিকার করেন। এছাড়া রশিদ খান কোন উইকেট না পেলেও ৪ ওভারে মাত্র ১২ রান খরচ করেন।

এই ম্যাচ জয়ী হয়ে পয়েন্ট টেবিলের ৪র্থ স্থানে উঠে এসেছে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস। অপরদিকে এই ম্যাচে পরাজিত হয়ে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স এখন পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে অবস্থান করছে।


ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স বনাম সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস এর স্কোরবোর্ড

সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস – ১৬৩/৬ (২০.০)

ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স – ১৫৬/৭ (২০.০)

ফলাফল – সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস ৭ রানে জয়ী

প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ – শেরফেন রাদারফোর্ড


ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স বনাম সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস


ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স বনাম সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস ম্যাচের একাদশ

ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স কাইরন পোলার্ড (অধিনায়ক), টিম সেফার্ট (উইকেট রক্ষক), কলিন মুনরো, লিওনার্দো জুলিয়ান, নিকোলাস পুরান, আন্দ্রে রাসেল, সামিত প্যাটেল, সুনীল নারাইন, ড্যারিন ডুপাভিলন, আকিল হোসেন এবং অ্যান্ডারসন ফিলিপ।
সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস ডোয়াইন ব্রাভো (অধিনায়ক), আন্দ্রে ফ্লেচার (উইকেট রক্ষক), ডিওয়াল্ড ব্রেভিস, এভিন লুইস, ড্যারেন ব্রাভো, কেসি কার্টি, শেরফেন রাদারফোর্ড, রশিদ খান, কেভিন সিনক্লেয়ার, শেলডন কটরেল এবং আকিলা ধনঞ্জয়া।

আরো ব্লগ