আজকের ট্রেন্ডিং

আড়াই মাসব্যাপী চলবে আইপিএল, সমস্যা নেই আইসিসির!

বর্তমান সময়ে জনপ্রিয় ফ্র‍্যাঞ্চাইজি লিগ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএল আয়োজিত হয় দুই মাসের কিছু বেশি সময় ধরে। তবে পরবর্তী আসরে আন্তর্জাতিক ক্যালেন্ডার থেকে আইপিএলের জন্য আড়াই মাসের (দশ সপ্তাহ) উইন্ডো থাকবে, রয়টার্সকে পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন বিসিসিআই সচিব জয় শাহ।

বর্তমানে আইপিএল-এর প্রতি মরসুমে খেলা হয় ৭৪টি করে ম্যাচ, সেটা বেড়ে হবে ৯৪টি ম্যাচ। বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম ধনী বোর্ড বিসিসিআই এই মাসে আগামী পাঁচ বছরের জন্য আইপিএল-এর সম্প্রচারকারী স্বত্বা বিক্রি করে ৬.২ বিলিয়ন ডলার ঘরে তুলেছে।

বিসিসিআই সচিব  জয় রয়টার্সকে আরো জানিয়েছেন, দশটি ফ্র‍্যাঞ্চাইজি নিয়ে আয়োজিত এই টুর্ণামেন্টে নতুনভাবে আরো কোন ফ্র‍্যাঞ্চাইজি যুক্ত করা হবে না। তিনি বলেন, “আইপিএলের জন্য বিশেষ সময়সূচি বের করতে আইসিসি এবং অন্যান্য ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আমাদের আলোচনা চলছে।

জয় আরো বলেন ” আপনাদের একটি বিষয় নিশ্চিত করতে পারি, আইসিসির পরবর্তী ভবিষ্যৎ সফরসূচিতে (এফটিপি) আড়াই মাস সময় বরাদ্দ থাকবে (আইপিএলের জন্য), যেন বিশ্বের শীর্ষ খেলোয়াড়েরা অংশ নিতে পারে। এ টুর্নামেন্ট থেকে তো সবাই উপকৃত হচ্ছে…আইসিসি ও অন্যান্য সহযোগী বোর্ডের কাছ থেকে আমরা ইতিবাচক সাড়া পেয়েছি।’

২০২৪–৩১ চক্রের ভবিষ্যৎ সফরসূচি (এফটিপি) নিয়ে আগামী মাসে আলোচনায় বসবে আইসিসি। বিসিসিআই সচিব জয় জানালেন আইপিএলের পরিধি বাড়লেও আন্তর্জাতিক সূচিতে কোন প্রভাব ফেলবে না।  ‘আইপিএলের পরিধি বাড়ানো অনেক কিছুর ওপর নির্ভর করে। যেমন ধরুন, প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের তালিকাও বাড়াতে হবে, এখানে কোনো ছাড় দেওয়া যাবে না। তৃণমূল পর্যায়ের ক্রিকেট শক্তিশালী করতে হবে। সঠিক অবকাঠামো তৈরি করা ছাড়াও আরও অনেক বিষয় আছে।

জয় আরো বলেন ” বিসিসিআই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সেটি শুধু ভারত বনাম ইংল্যান্ড কিংবা ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়ার মতো জমকালো সিরিজের জন্য নয়। আমরা এমন একটি সূচি তৈরি করতে চাই, যেখানে নিয়মিত দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলার মাধ্যমে সহযোগী দেশগুলোকে সাহায্য করাই হবে লক্ষ্য।’

আরো আজকের ট্রেন্ডিং