ব্লগ

ক্রিকেট হাইলাইটস, ১৫ জুলাই: আয়ারল্যান্ড বনাম নিউজিল্যান্ড (৩য় ওডিআই)

আয়ারল্যান্ড বনাম নিউজিল্যান্ড 3rd ODI Highlights

আয়ারল্যান্ড বনাম নিউজিল্যান্ড (৩য় ওডিআই) – হাইলাইটস

শুক্রবার ডাবলিনের মালাহাইডে তিন ম্যাচের ওডিআই সিরিজের ৩য় ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল আয়ারল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ড। এবারও আয়ারল্যান্ড খুব ভাল খেলেছে কিন্তু অল্পের জন্য হোয়াইটওয়াশ হতে হল তাদের। 

নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ৩৬০ রান। জবাবে ৩৫৯ রান করে ফেলেছিল আয়ারল্যান্ড। নিউজিল্যান্ডের জয় মাত্র ১ রানে। ৩৬০ রান করেও জয় মাত্র এক রানে! পাঠক, এটুকু পড়েই বুঝে নিন, শুক্রবার রাতে কি এক রূপকথার ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল ডাবলিনের মালাহাইডে!

টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড। শুরু থেকেই মারমুখি ছিলেন কিউই ওপেনার মার্টিন গাপটিল। ফিন অ্যালেনকে সঙ্গে নিয়ে তিনি গড়েন ৭৮ রানের জুটি। ৩৩ রান করে আউট হন ফিন অ্যালেন। নিউজিল্যান্ডের হয়ে সেঞ্চুরি করেছিলেন মার্টিন গাপটিল। ১২৬ বলে ১১৫ রান করে আউট হন মার্টিন গাপটিল।

তিন নম্বরে নামা উইল ইয়ং আউট হন মাত্র ৩ রান করে। অধিনায়ক টম ল্যাথাম করেন ৩০ রান। হেনরি নিকোলস ৫৪ বলে করেন ৭৯ রান। গ্লেন ফিলিপস ৩০ বলে করেন ৪৭ রান। মিচেল ব্রেসওয়েল ২১ রানে এবং মিচেল সান্তনার অপরাজিত থাকেন ১৪ রানে। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেটে ৩৬০ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।

আয়ারল্যান্ডের পক্ষে জোশুয়া লিটল ১০ ওভারে ৮৪ রান দিয়ে নিয়েছেন ২টি উইকেট। ক্রেগ ইয়ং ৮ ওভারে ৫৬ রান দিয়ে নিয়েছেন ১টি উইকেট। কার্টিস ক্যাম্পার ৭ ওভারে ৪৬ রান দিয়ে নিয়েছেন ১টি উইকেট। গ্যারেথ ডেলানি ৭ ওভারে ৫০ রান দিয়ে নিয়েছেন ১টি উইকেট।

কিন্তু ইতিহাস সব সময়ই জয়ীদের নাম মনে রাখে। পরাজিতদের নয়। সে কারণে বিজয়ী দল নিউজিল্যান্ডে বীরত্বের কথাই বলবে সবাই। তবে, আয়ারল্যান্ডের অসাধারণ এই লড়াইটি সম্ভব হয়েছে কেবল পল স্টার্লিং এবং হ্যারি টেকটরের দুর্দান্ত দুটি সেঞ্চুরির সুবাধে। পল স্টার্লিং করেন ১২০ রান। হ্যারি টেকটর আউট হন ১০৮ রান করে।

জবাব দিতে নেমে শুরুতেই অ্যান্ডি বালবিরনির উইকেট হারালেও বিচলতি হয়নি আয়ারল্যান্ড। অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইনকে নিয়ে ৫৫ রানের জুটি গড়ে পরিস্থিতি সামাল দেন পল স্টার্লিং। ২০ বলে ২৬ রান করে আউট হন ম্যাকব্রাইন।

এরপর পল স্টার্লিং এবং হ্যারি টেকটর মিলে গড়ে তোলেন ১৭৯ রানের বিশাল এক জুটি। ২৪১ রানের মাথায় গিয়ে আউট হন পল স্টার্লিং। ততক্ষণে অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারের নামের পাশে শোভা পাচ্ছে ১২০ রান। ক্যারিয়ারে এটা তার ১৩তম সেঞ্চুরি।

হ্যারি টেকটর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি করে আউট হন ১০৮ রান করে। গ্যারেথ ডিলানি ২২, কার্টিস ক্যাম্পার ৫, লোরকান টাকার ১৪, জর্জ ডকরেল ২২ রান করে আয়ারল্যান্ডকে একেবারে জয়ের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গিয়েছিলেন।

৪৯ ওভারে ৩৫০ রান করে ফেলেছিল আইরিশরা। শেষ ওভারে জয়ের জন্য তাদের প্রয়োজন ছিল মাত্র ১০ রান। উইকেটে গ্রাহাম হিউম এবং ক্রেইগ ইয়ং। শেষ পর্যন্ত এই ১০ রান আর নিতে পারলেন না তারা। নিলেন ৮ রান। প্রথম বল ছিল ডট, দ্বিতীয় বলে ১ রান। তৃতীয় বলে ক্যাচ উঠলেও ফিল্ডার ধরতে পারেননি। বাউন্ডারি। ৩ বল থেকে ৫।

বাকি ৩ বলে ৫ নিতে পারলেই ইতিহাসের সবচেয়ে শ্বাসরূদ্ধকর ম্যাচটিতে জয় হবে আয়ারল্যান্ডের। কিন্তু চতুর্থ বলেই বাউন্ডারি মারা ইয়ং ১ রানের পর দ্বিতীয় রান নিতে গিয়েই আউট হয়ে গেলেন। ৫ম এবং ৬ষ্ঠ বলে নিলেন কেবল ১টি করে রান। শেষ পর্যন্ত মাত্র ১ রানের দুঃখজনক পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়লো আইরিশরা।

কিন্তু এই পরাজয়েও যেন দুঃখ লেখা থাকবে না আয়ারল্যান্ডের পাশে। কারণ, ওয়ানডেতে বিশ্বের এক নম্বর দলের বিপক্ষে ৩৬০ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে তারাও চলে গিয়েছিল ৩৫৯ রান পর্যন্ত। এতটুকুই বা কম কিসে!

নিউজিল্যান্ডের পক্ষে ম্যাট হেনরি নিয়েছেন ৪টি উইকেট। মিচেল স্যান্টনার নিয়েছেন ৩টি উইকেট। ব্লেয়ার টিকনার নিয়েছেন ১টি উইকেট। 

আয়ারল্যান্ড বনাম নিউজিল্যান্ড এর স্কোরবোর্ড

আয়ারল্যান্ড – ৩৫৯/৯ (৫০)

নিউজিল্যান্ড – ৩৬০/৬ (৫০)  

ফলাফল – নিউজিল্যান্ড ১ রানে জয়ী। 

প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ – মার্টিন গাপটিল


আয়ারল্যান্ড বনাম নিউজিল্যান্ড 3rd ODI Highlights - Dream 11


আয়ারল্যান্ড বনাম নিউজিল্যান্ড ম্যাচের একাদশ

আয়ারল্যান্ড অ্যান্ড্রু বালবির্নি (অধিনায়ক), লোরকান টাকার (উইকেটরক্ষক), অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইন, পল স্টার্লিং, কার্টিস ক্যাম্পার, হ্যারি টেক্টর, ক্রেগ ইয়ং, জর্জ ডকরেল, গ্যারেথ ডেলানি, জোশুয়া লিটল, গ্রাহাম হিউম
নিউজিল্যান্ড টম ল্যাথাম (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), ফিন অ্যালেন, মার্টিন গাপটিল, হেনরি নিকোলস, উইল ইয়াং, মাইকেল ব্রেসওয়েল, গ্লেন ফিলিপস, ম্যাট হেনরি, মিচেল স্যান্টনার, ব্লেয়ার টিকনার, লকি ফার্গুসন

 

আরো ব্লগ