Skip to main content

আইএলটির ফাইনালে উঠে উচ্ছ্বসিত টম কারান

আইএলটির ফাইনালে উঠে উচ্ছ্বসিত টম কারান

সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রথমবারের মতো আয়োজিত, ইন্টারন্যাশনাল লিগ টিটোয়েন্টির (আইএলটি) খেলা এখন  শেষ পর্যায়ে। বাকি আছে শেষদিকের কয়েকটি ম্যাচ। এরমধ্যে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচ। সেই ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে, প্রথম দল হিসেবে আইএলটির ফাইনালে পা রেখেছে ডেসার্ট ভাইপার্স। আর দলকে ফাইনালে তুলতে পেরে বেশ খুশি টম কারান। সেই সাথে শিরোপা জয়ের ব্যাপারেও ভীষন আত্মবিশ্বাসী এই ক্রিকেটার।

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে, ডেসার্টকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠান গালফের অধিনায়ক জেমস ভিন্স। অবশ্য তার সেই সিদ্ধান্ত সঠিকও প্রমাণ হয়। ইনিংসের শুরুতেই তিন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ডেসার্ট। কিন্তু সেখান থেকে দলকে টেনে তুলেছেন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা। দায়িত্বশীল ব্যাটিং করে দলকে ১৭৮ রানের পুঁজি এনে  বিলিংস, টম কারানরা।

সেই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে, ভালো শুরু পায় গালফ। কিন্তু ইনিংসে ছন্দ ধরে রাখতে পারেনি তারা। যে কারণে ভেঙে পড়েছে গালফের ব্যাটিং লাইনআপ। ১৯. ওভারে সবকটি উইকেট হারানোর আগে ১৫৯ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়েছে দলটি। গালফের ব্যাটিং লাইনআপে সবচেয়ে বেশিবার আঘাত হেনেছেন কারান। এই পেসার একাই শিকার করেছেন ৪টি উইকেট। ম্যাচসেরাও হয়েছেন তিনি।

এদিকে অলরাউন্ড পারফরম্যান্স করে দলকে ফাইনালে তুলে, এটাকে বড় জয় হিসেবে মানছেন কারান। সেইসাথে নিজের সন্তুষ্টির কথাও জানান ইংলিশ অলরাউন্ডার। সংবাদ সম্মেলনে  কারান বলেন, ” শুরুতে ম্যাচটা কঠিন হয়ে যায়। কিন্তু আমরা হাল ছাড়িনি। নিজেদের সেরাটা দিয়ে লড়াই করেছি। শেষ পর্যন্ত আমরা সফল হয়েছি। নিঃসন্দেহে এটি বড় একটি জয়।ম্যাচটি আমাদের পক্ষে ছিল। আমরা শিরোপা জয়ের ব্যাপারেও আশাবাদী। ফাইনালেও আমরা জয়ের জন্য লড়াই করব।

ফাইনাল নিশ্চিত হওয়ার পর নিজের অনুভূতি প্রকাশ করেছেন, দলটির আরেক তারকা ক্রিকেটার কলিন মুনরো। যদিও কোয়ালিফায়ার ম্যাচে দলের জন্য অবদান রাখতে পারেননি মারকুটে এই ব্যাটসম্যান। তবে নিজে পারফর্ম করতে না পারলেও, সতীর্থদের প্রশংসা করতে ভুলেননি তিনি। তারমধ্যে দারুণ সব ছক্কা হাঁকানোর জন্য, আলাদাভাবে প্রশংসায় ভাসালেন শেরফান রাদারফোর্ডকে।দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কারানের দল ফাইনালে জিতে কিনা।

আরো আজকের ট্রেন্ডিং

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স আইপিএল ২০১৫ চ্যাম্পিয়নদের মুকুট পেয়েছে: ইডেন গার্ডেনে আরেকটি বিশাল জয়

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ২০১৫ সালে এর আরেকটি দর্শনীয়  মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স আইপিএল ২০১৫ চ্যাম্পিয়নদের মুকুট পেয়েছে: ইডেন গার্ডেনে আরেকটি বিশাল জয়, ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ২০১৫ সালে এর আরেকটি দর্শনীয়...

আইপিএল ২০১৪-এ কলকাতা নাইট রাইডার্সের জয়: পার্পল এবং গোল্ড ওয়ারিয়র্সের জন্য সোনালি বিজয়!

আইপিএল ২০১৪-এ কলকাতা নাইট রাইডার্সের জয়: পার্পল এবং গোল্ড ওয়ারিয়র্সের জন্য সোনালি বিজয়! ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ২০১৪ সালের ফাইনালে, কলকাতা নাইট রাইডার্স কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত জয়ের মাধ্যমে...

আইপিএল ২০১৩-এ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের আধিপত্য: গোল্ড ব্রিলিয়ান্স দিয়ে জয়ের সিলমোহর!

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ২০১৩ মরসুমে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের আধিপত্য প্রদর্শনের সাক্ষী ছিল, ফাইনাল ম্যাচে তাদের বিজয়ী জয়ের সমাপ্তি ঘটে। তাদের গতিশীল অধিনায়ক, রোহিত শর্মার নেতৃত্বে, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে...

আইপিএল ২০১২-এ কলকাতা নাইট রাইডার্সের রাজত্ব সর্বোচ্চ: গোল্ড ব্রিগেডের জন্য একটি ঐতিহাসিক জয়!

আইপিএল ২০১২-এ কলকাতা নাইট রাইডার্সের রাজত্ব সর্বোচ্চ: গোল্ড ব্রিগেডের জন্য একটি ঐতিহাসিক জয়! ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ইতিহাসে, ২০১২ মৌসুম একটি ঐতিহাসিক অধ্যায় হিসেবে দাঁড়িয়েছে, বিশেষ করে কলকাতা নাইট রাইডার্সের...